ভ্রমণকালীন মাসিক স্বাস্থ্য সুরক্ষার ৫টি টিপস!

একটি ভ্রমণ শুরু করার সময় মনে কতো উত্তেজনা কাজ করে, তাই না? সেই সাথে অবশ্য থাকে দুঃশ্চিন্তাও। ভ্রমণকালীন সময়ে পিরিয়ড হওয়া এমনই একটি দুঃশ্চিন্তা।

তবে ঠিক ভাবে পরিকল্পনা করলে এবং প্রস্তুতি নিতে পারলে, ভ্রমণের সময়ে পিরিয়ড কোনো দুঃশ্চিন্তার ব্যপারই না! 

চলো দেখে নেই, কীভাবে তুমি তোমার পিরিয়ডের সময়েও ভ্রমণ করতে পারবে আনন্দে।

ভ্রমণের আয়োজন করো সাইকেল অনুসারে: 

তোমার স্মার্টফোনে পিরিয়ড-ট্র্যাকিং অ্যাপ ব্যবহার করতে পারো। এতে তোমার পিরিয়ড কবে শুরু হবে তা নিয়ে একটি ধারণা থাকবে। তাই যখন ভ্রমণের পরিকল্পনা করা হবে, তখন তুমি তোমার পিরিয়ডের তীব্রতম দিনগুলো এড়িয়ে যেতে পারবে। 

যদি পুরোপুরি নাও এড়াতে পারো, এরপরও যথাযথ প্রস্তুতি গ্রহণ করতে পারবে। 

প্যাক কর প্রো এর মতো:

তোমার পছন্দের পিরিয়ড পণ্যগুলো প্যাক করো। পর্যাপ্ত পরিমাণে প্যাড, ট্যাম্পন বা মেন্সট্রুয়াল কাপ প্যাক করতে হবে এমন জায়গায় যেখান থেকে তুমি সহজেই বের করতে পারবে যখন খুশি, যেখানে খুশি।

পাশাপাশি একটি ছোট ব্যাগে প্যারাসিটামল বা এ্যাসপিরিন জাতীয় ওষুধ, পোর্টেবল হটব্যাগ, টিস্যু, ডিসপোজেবল পিরিয়ড ব্যাগ ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় জিনিস নিয়ে নিতে ভুলবে না। 

জামা-কাপড় নেওয়ার সময়ে অবশ্যই বেশি করে প্যান্টি নিয়ে নিবে। এবং এমন ধরনের কাপড় প্যাক করবে যেগুলো পরতে আরামদায়ক।

সাঁতার বা অন্যান্য অ্যাক্টিভিটির পূর্বে প্রস্তুতি নাও:

পিরিয়ডের কারণে তোমাকে ভ্রমণের বিভিন্ন অ্যাক্টিভিটি উপভোগ করা থেকে দূরে থাকতে হবে না মোটেই। তবে বিশেষ কিছু প্রস্তুতির মাধ্যমে অস্বস্তিকর পরিস্থিতি এড়াতে পারবে সহজেই। 

যেমন, সাঁতার কাটার সময় বা বিচে পানিতে নামলে ট্যাম্পন বা পিরিয়ড কাপ ব্যবহার করতে পারো। 

পাহাড়ে ওঠা বা হাইকিং এর জন্য ব্যবহার করা ভালো উইংস যুক্ত লম্বা ও হালকা কটন প্যাড। 

দাগ সংক্রান্ত দুর্ঘটনায় করণীয়:

হেভি পিরিয়ডে ব্লাড লিক করা বা দাগ পড়া একটা স্বাভাবিক ঘটনা। এতে লজ্জা পাওয়ার কিছু নেই। 

হোটেলের চাদরে বা গাড়ির সিটে যদি দাগ পড়ে, তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব হোটেল পরিচারকদের জানাও।

সম্ভব হলে ট্রাভেল সাইজ লিকুইড সোপ আর বেবি ওয়াইপস দিয়ে নিজে যতোটা সম্ভব পরিষ্কার করে রাখতে পারো। 

সাধারণত, নির্দিষ্ট সময় পরপর পিরিয়ড প্রোডাক্ট পরিবর্তন করে এবং লিকপ্রুফ প্যান্টি ব্যবহার করে এমন দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব।

বাথরুম ব্রেক প্ল্যান করা:

আমরা জানি যে অন্তত ৮ ঘন্টা পরপর প্যাড ও ট্যাম্পন পরিবর্তন টক্সিক শক সিন্ড্রোম ও অন্যান্য শারীরিক সমস্যা এড়াতে খুবই জরুরী। এছাড়াও মুত্রাশয় খালি না করা UTI (Urinary Tract Infection) এর ঝুঁকিও বাড়িয়ে দেয় যা পিরিয়ডের ব্যাথাকে তীব্র করতে পারে। 

তাই আগে থেকেই গুগল ম্যাপের সাহায্য নিয়ে বা ট্রাভেল পার্টনারদের সাথে কথা বলে বাথরুম ব্রেক প্ল্যান করে রাখবে।

ব্যাথা, জ্বর বা এমন কোনো শারিরীক সমস্যা না থাকলে নিছক পিরয়ডের কারণে পূর্বপরিকল্পনা ও আনন্দ-অ্যাডভ্যাঞ্চার থেকে বিরত থাকার কোনো কারণই নেই।  

যথাযথ পরিকল্পনা, সে অনুযায়ী প্রস্তুতি, এবং নিজের ইচ্ছে থাকলে পিরিয়ড নিয়েই লিখে ফেলা যায় তোমার অ্যাডভেঞ্চার গল্পের একটি নতুন অধ্যায়!

-নাদিয়া নুসরাত

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *